ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং নিয়ে কিছু কথা-২

0
14

ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং নিয়ে কিছু কথা-২

 

ফ্রিল্যান্সিং একটি বহুল আলচিত শব্দ, এই শব্দটি শুনে নাই এমন মানুষ খুবকমই খুঁজে পাওয়া যাবে ।

ফ্রিল্যান্সিং শব্দটির আরেকটি পরিপূরক শব্দ হচ্ছে আউটসোর্সিং।

ফ্রিল্যান্সিং এর অর্থ সহজ ভাবে বুঝানোর জন্যে আমি সাধারনত একটা উধাহরন দেই, মনেকরি রহিম একজন ‘ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার’ এর মানে হচ্ছে তিনি তার তোলা ফটো যে কোন পত্রিকা বা প্রথিস্থান এর নিকট বিক্রয় করতে পারেন ।

এমনি ভাবেএকজন ফ্রীলেন্সার তার পেশা গতকাজ মুক্তভাবে যে কোন প্রতিষ্ঠানএর জন্যে করতে পারেন।

আউটসোর্সিং এর মানে হচ্ছে আপনি বা আপনাদের প্রতিষ্ঠানেরকাজ অন্য কাওকে দিয়ে করিয়ে নেয়া।

আর জারা এই কাজ করে থাকে তাদেরকে বলা হয় ফ্রীলেন্সার ।

আউটসোর্সিং মানেই ইউরোপ আমেরিকা থেকেটাকা উপার্জন বুঝায় না।

এটা আভ্যন্তরীণ বা আন্তর্জাতিক উভয় পর্যায়ে-ই হতে পারে|তবে হাঁ আমি পুরপুরি নিশ্চিত যে ,আপনি অনলাইনে ইউরোপ আমেরিকার টাকা আপনার পকেটে ঢুকানোর বিষয়টি জানতে-ই আমার ওয়েবসাইটে এসেছেন !!

আপনারইচ্ছাকে আমি সাধুবাদ জানাই,অভিনন্দন আপনি পারবেন!

আপনকে দিয়ে-ইহবে, করন আপনার ইচ্ছা আরআগ্রহআছে বলে-ই আমার এই artical পরতেছেন।

আপনার প্রতিআমার অনুরোধ, এই আগ্রাহ হারাবেননা। এইবার আসুন ফ্রিল্যান্সিং পেশাসম্পর্কে একটু জানিঃ ফ্রীলান্সিং একটি স্মার্ট পেশা,আপনি-ই আপনার বস

ভাবতেইভালো লাগে, তাইনা !?

আপনিস্বাধীন, পুরো বিশ্ব-ই আপনারঅফিস। আপনার অফিস হতেপারেআপনার গ্রামের বাড়ি, শহরেরবাসা এমন কি কোন সমুদ্র সৈকত। অনেকের ধারনা একটা কম্পিউটারআর ইন্টারনেট কানেকশন থাকলে-ইonline থেকে টাকা আয় শুরু করেদেওয়া যায়।

এমন ভাবাটাস্বাভাবিক নতুনদের জন্যে, কিন্তুবাস্তবতা সম্পূর্ণ ভিন্ন।

অনলাইনেউপার্জন সম্ভব হবে নিজেকেকোনবিশেষ পেশায় দক্ষ হিশেবেগোড়ে তোলার মাধ্যমে|ফ্রীলান্সিং কোন রকেট সায়েঞ্চনা, ফ্রীলেন্সার হওয়ার জন্যেআপনাকে কম্পিউটার এর জাহাজও হতে হবে না ।

আপনি যে বিষয় টিভালো জানেন সেইটা নিয়াইআপনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করেদিতে পারেন।

এইটা শিখার জন্যেকোন বেক্তি বা প্রতিষ্ঠান এরনিকট জেতে হবেনা, বাহারিবিজ্ঞাপন এর ফাঁদে পড়ে বেয়করতে হবেনা নগদ অর্থ-কড়ি |অনলাইনে আপনার জন্যে রয়েছেহাজারো তথ্য আরটিওটোরিয়ালের ভাণ্ডার।

আপনিআপনার পছন্ধের পেশায় নিজেকেযোগ্য করে তুলতে পারেন, ভিডিওটিওটোরিয়াল আর ব্লগ এরমাধ্যমে|ব্লগ আর টিওটোরিয়ালকেঅনুপ্রেরণা হিশাবে নিয়েনিজেকে করতে হবে স্কিল্ড,আরসেইটা শিখা ও রাতারাতি সম্ভবনা,

এর জন্যে থাকতে হবে প্রচণ্ডইচ্ছা শক্তি। স্মরণ রাখতে হবঅন্যেরপকেটের টাকা নিজের পকেটেআনতে হলে সেইটার উত্তম উপায়আপনার জানতে হবে|শরণ রাখা জরুরি, আপনি আপনারকর্মদক্ষতা দিয়ে যে উপার্জন করবেনসেটা-ই মুক্ত পেশা|

কোন অনলাইনওয়েবসাইট-এ ক্লিক করে টাকাউপার্জন এর ফাঁদে পা দিবেন না,আপনাকে বলা হবে এইটাই দ্রুত ওসহজউপায়ে ফ্রীলেন্সার হওয়ার পথ,তবে সত্য হচ্ছে এইটা পুরোটাইপ্রতারণা, আমি নিজে ও এইপ্রতারণার শিকার হয়েছিয়ালামপ্রথম দিকে, তাই আমি আপনাকেআগেই সতর্ক করে রাখতে চাইজেনএই পথে পা না বাড়ন, যা শুধুআপনারমূল্যবান সময় নষ্টই করবে|

নিজেইভেবে দাখুন, আপনি কোন কিছুকরছেন না কিন্তু তারা আপনাকেটাকা দিবে, বিষয় টা কেমন না?

তার পর ও ভেবে নিলাম তারাটাকা দিবে, কিন্তু কতদিন?

ক্লিককরে কি আপনি কিছু শিখতেপারছেন?

কোন বাক্তিগতযোগ্যতাবাড়ছে? অবশই না| সুতরাং এমনকিছুকরুন যা আপনার পরিশ্রম দিয়াটাকাউপার্জন করার দার উন্মোচন করেদিবে|আমি আমার পরবর্তী আর্টিকেলেকোন কোন পেশায় ফ্রীলেন্সারহিশাবে আপনি নিজেকে বিশ্বেরদরবারে পরিচয় করিয়ে দিতেপারেন.

LEAVE A REPLY