প্রোগ্রামিং বেসিক টিউটোরিয়াল

0
9

কম্পিউটার প্রোগ্রামিং কি ?

প্রোগ্রামিং কি তা সহজে বললে, কম্পিউটারকে ইন্সট্রাকশন দেওয়ার প্রক্রিয়া হচ্ছে প্রোগ্রামিং।

আরেকটু ভালো করে বলতে যে কোন অটোমেটেড মেশিনকে ইন্সট্রাকশন দেওয়ার প্রক্রিয়া হচ্ছে প্রোগ্রামিং।

কমপিউটারের মাধ্যমে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় নিদের্শমালার সমষ্টিকে প্রোগ্রাম (program) বলা হয়।

আর এই ধারা বণর্না বা প্রোগ্রাম রচনার পদ্ধতি বা কৌশলকে প্রোগ্রাম পদ্ধতি বা প্রোগ্রামিং (programming) বলা হয়।

অন্য কথায়, কোন সমস্যা অল্প সময়ে এবং সহজে সমাধানের উদ্দেশ্যে সম্পাদানের অনুক্রমে নিদের্শাবলী সাজানোর কৌশলকে প্রোগ্রামিং বলা হয়।
তোমার মনে প্রশ্ন আসতে পারে প্রোগ্রাম বানিয়ে কি করব?? প্রোগ্রাম বানিয়ে তুমি অনেক কিছুই করতে পারো।

তুমি তোমার বানানো সফটওয়্যার বানিয়ে বিক্রি করতে পারো। ফ্রীল্যান্সিং এর জন্যও ব্যবহার করতে পারো। ভাইরাস বানাতে পারো। গাণিতিক সমস্যা সমাধান করতে পারো।তুমি নিজের প্রয়োজনমত ব্যবহার করতে পারো।
সবচেয়ে বড় কথা প্রোগ্রামিং জিনিসটা খুবই মজার।আমি প্রোগ্রামিং নিয়ে যে কি মজা করি কল্পনাও করতে পারবা নাহ !

তাহলে প্রোগ্রামিং শুরু করবে কি করে?? প্রথমে একটি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ জানা থাকা লাগবে।

সেই জন্যে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজটি শিখতে হবে। জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলোর মধ্যে কয়েকটি হল সি, সি++, জাভা, সি-#, ভিজ্যুয়াল বেসিক ইত্যাদি।

কেন শিখবে প্রোগ্রামিং ??

কম্পিউটার একটি অসম্ভব ক্ষমতাবান কিন্তু নির্বোধ একটি যন্ত্র। একটি যন্ত্র ৫০জন সাধারণ মানুষের কাজ একাই করতে পারে কিন্তু ৫০টি যন্ত্র একটি অসাধারণ মানুষের কাজ করতে পারেনা(Hubbard, Elbert)। প্রোগ্রামিং শিখে আমরা একেকজন হয়ে উঠতে পারি সেই মানুষটি যে এই যন্ত্রকে ইচ্ছামত কথা শোনাতে পারে।

তুমি যা বলবে যেভাবে কম্পিউটার তাই করবে, এটাই হলো সোজা কথায় প্রোগ্রামিং। হয়তো বলতে পারো এখনইতো কম্পিউটার সেটা করে, আমি গান শুনাতে বললে সে শুনিয়ে দেয়, আমি গেম খেলতে চাইলে সে আমার সাথে খেলতে শুরু করে।

কিন্তু আসল ব্যাপারটা হলো একজন প্রোগ্রামার আগেই কম্পিউটারকে বলে রেখেছে যে তুমি গান শুনতে চাইলে সে যেন শুনিয়ে দেয়। সে যদি বলে রাখতো গেম খেলতে চাইলে পড়তে বসার উপদেশ দিতে তাহলে কম্পিউটার তাই করতো, তোমার কিছু করার থাকতোনা। প্রোগ্রামার হলো সে যার কথায় কম্পিউটার উঠা-বসা করে।

দারুণ একটা ব্যাপার এটা, তাইনা?

কিন্তু তুমি কেন প্রোগ্রামিং শিখবে? বড় বড় কথা বলার আগে সবথেকে প্রথম কারণ আমি বলবো কারণ “প্রোগ্রামিং দারুণ মজার একটি জিনিস!”। কম্পিউটারের সাথে অন্য যন্ত্রের বড় পার্থক্য হলো এটা দিয়ে কতরকমের কাজ করানো যায় তার সীমা নেই বললে খুব একটা ভুল হবেনা। তাই প্রোগ্রামিং জানলে যে কতকিছু করা যায় তার তালিকা করতে বসলে শেষ করা কঠিন।

তুমি দিনের পর দিন প্রোগ্রামিং করেও দেখবে জিনিসটা বোরিং হচ্ছেনা, প্রায় প্রতিদিনই নতুন মজার কিছু শিখছো, নতুন নতুন টেকনোলজী আবিষ্কারের সাথে সাথে তুমি আরো অনেক রকম কাজ করতে পারছো অথবা তুমিই করছো নতুন আবিষ্কার! আজ হয়তো জটিল কোনো সমীকরণ সমাধান করার জন্য ফাংশন লিখছো, কাল এসব ভালো লাগছেনা বলে লাল-নীল রঙ দিয়ে একটি অ্যানিমেশন বানাতে বসে গেলে, তোমার সৃষ্টিশীলতার সবটুকুই কাজে লাগাতে পারবে প্রোগ্রামিং এর জগতে। যে জীবনে প্রোগ্রামিং শিখলোনা সে যে কি মিস করলো কখনোই কল্পনা করতে পারবেনা।

ভিজুয়াল বেসিক কিঃ

Visual অর্থ দৃশ্যমান এবং Basic অর্থ মৌ্লিক। অর্থ্যাৎ প্রোগ্রামের কোডের ধরন।

ভিজুয়াল বেসিক (যাকে আমরা সংক্ষেপে ভিবি বা vb বলে থাকি) একটি তৃতীয় প্রজন্মের ঘটনা চালিত প্রোগ্রামিং ভাষা এবং মাইক্রোসফটের “কম” বা কম্পোনেন্ট অবজেক্ট মডেল এর আইডিই (IDE – integrated development environment)। মাইক্রোসফট এই ভাষাকে বাজারে আনে পুরাতন বেসিক ভাষার উন্নত সংষ্করন হিসেবে।

দৃশ্যমান বা গ্রাফিকাল বৈশিষ্ট্য এবং বেসিক ভাষার উত্তরাধিকার ভিবিকে তুলনামূলকভাবে সহজ়ে আয়ত্ত এবং ব্যবহার করার সুবিধা প্রদান করেছে। বর্তমানে এই ভাষাটি ভিজুয়াল বেসিক ডট নেট দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়েছে। আর জানতে
বেসিক ভিবি জিইউআই – গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেস (GUI-graphical user interface) বা ব্যবহারকারীর জন্য দৃশ্যমান ব্যবহার ব্যবস্থার Rapid Application Development (RAD) অ্যাপ্লিকেশন চালু করেছে। আর এই গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেসই হল ভিজুয়াল বেসিক।

LEAVE A REPLY